পটিয়াস্থ ১২নং হাইদগাঁও ইউপি‘র খাইরুল বসরের যৌতুকের বলী হয়ে তিন নারী দিশাহারা জীবনে…!

(পটিয়া প্রতিনিধি ও নিজস্ব প্রতিনিধিঃ২৭ সেপ্টেম্বর)
উপজেলা পটিয়াস্থ ১২নং হাইদগাঁও ইউপি’র মোঃ খাইরুল বসরের যৌতুকের বলি হয়ে একে একে তিন অসহায় নারী এখন শিশু সন্তান নিয়ে অনেকটা অস্বচ্ছল পরিবারের বোঝা হয়ে নিধারুণ কষ্টে দিন যাপনের তথ্য পাওয়া গেছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,খাইরুল বসর নিজে যৌতুক বিরুধী সংগঠনের নেতা,আর তিনি তথ্য গোপন করে মোটা অংকের যৌতুক নিয়ে একে একে তিন বিয়ে করে এলাকায় দারুণ কৌতুক সৃষ্টি করেছেন। যাহা রীতি তার পরিবারও হতাশ প্রকাশ করেছেন।
ধর্মের লেভাসে নিরীহ পরিবার কে জিম্মি করে শ্বশুর পক্ষ থেকে মোটা অংকের টাকা-উপহার সামগ্রী নিয়ে বছর দুয়েক পরে তালাক নোটিশ, মিথ্যা মামলা আর আইনের ভীতি প্রদর্শন এবং এসিড ছুড়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি এবং মোহরনা আদায়-নারী শিশু নির্যাতন ধারায় তুলে নিতে বাদী পক্ষ পথ-ঘাটে হুমকি দিয়ে চরম নির্যাতন সহ যৌতুকের টাকায় মোটার বাইক নিয়ে উল্টো শ্বশুর পক্ষ হত্যার হুমকি দিয়ে বেড়াচ্ছে।
বসর স্থানীয় শালিশ পরিষদ কে মিথ্যা তথ্য ও বিনা অজুহাতে গ্রামের সহজ-সরল নিরীহ অসহায় পরিবারের মেয়েদের বিয়ে করার নাটক সাজিয়ে সর্বস্ব লুটে নিয়ে তালাক কাগজ পাটিয়ে প্রতারণার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বশরের বিরুদ্ধে পটিয়া থানায় একাধিক জিডি/অভিযোগ, চেয়ারম্যান-মেম্বারের নিকট বিচার প্রার্থনা প,টিয়া আদালতে মামলা,চট্টগ্রাম আদালতে মামলা সহ অজস্র লিখিত অভিযোগ থাকলেও কিছু কুচক্রি মহলেরইন্দনেএবং দালাল প্রকৃতির লোকদের অবৈধ টাকা দিয়ে আইনী পদক্ষেপ থেকে পার পেয়ে বাদী পক্ষ কে প্রাণনাশের ক্ষতি সাধনের চেষ্টা করছেনপটিয়া পৌরসভাস্থ(গোবিন্দারখীর,৮নং ওয়ার্ডের)ভুক্তভোগি শাহিনের মা নুর আয়শা অভিযোগে জানান।
তিনি আরো জানাই,বসরের হুমকিতেও ভয়ে বর্তমানে তারা পরিবার-পরিজন নিয়ে অসহায়ত্ব জীবন যাপন করছেন ।
একই কথা জানিয়েছেন স্ত্রী(তালাক প্রাপ্ত) ২য় শাহিন আক্তার। তার একটি পুত্র সন্তান সহ মা-ভাই কে নিয়ে কঠিন অবস্থায় গ্রামের বাড়িতে বসবাস করেছেন। এলাকার শালিশি পরিষদ সদস্যরা বসরের ব্যাপারে উচ্চ আইনী ব্যবস্থা নিতে বাদী শাহিনা কে জানিয়ে দিয়েছেন বলে প্রতিবেদকের কাছে স্বীকার করেন। তিনি আরো বলেন,বসর বর্তমানে একটি ইসলামী সংগঠন থেকে বহিস্কৃত হয়ে বিভিন্ন এলাকায় ধর্মীয় সংগঠনের নামে প্রতারণা করে বেড়াচ্ছেন। তার বিষয়ে কোন ব্যক্তি বা তার পরিবারও দায়ি নিবেন না বলে তার আপন ভাই সংবাদ মাধ্যম কে জানিয়েছেন। জানা গেছে যে, বসরের খারাপ কর্মে কান্ডের কারণে তার পরিবারও তার বিরুদ্ধে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন।
তার বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে ম্যাজিস্ট্রেটের রেকর্ডের জন্য বিগত ২০/১০/২০১৯সালে(নারী ওশিশু) ধারায় নথিভুক্ত মামলা নং-২৬৭/১৯,চেয়ারম্যান দরাবারে নালিশ পত্র নং-২১/৮/১৯,পটিয়া আদালাতে-০৫/০৯/২০১৯ তারিখে হত্যা চেষ্টা,নির্যাতন, শিশুহত্যা এবং যৌতুকের জন্য মারধর সহ আরো একাধিক কারণে চরম নির্যাতন চালাই বলে প্রতিবেশী মোঃ খোকন সংবাদ মাধ্যম কে জানিয়েছেন।
পটিয়া গোবিন্দখীরের যুবক খোকন আরো জানাই,তার বড় বোনের সাথে এই চরিত্রহীন বসরের বিবাহে হয়েছিল ১০/১২বছর আগে,সেই ঘরে দুটি সন্তান ওআছে। তার বোনের নাম রাসেদা বেগম। তাকে সে যৌতুকের জন্য চরম নির্যাতন করে মিথ্যা অজুহাতে তালাক দিয়ে একই এলাকার শাহিনা ২য় বিয়ে করে। এর আগে আমার বোনের করা মামলায় লোভী বসর কে নারী-শিশু নির্যাতন আইনে জেলে পাঠায়। জেল থেকে ছাড়া পেয়ে আমাদের হত্যার হুমকি সহ জীবন নাশের ক্ষতিসাধনে লিপ্ত হন। পরে মেম্বার ও শালিশি পরিষদের মাধ্যমে তাকে বেদম প্রহার করে ছেড়ে দিই।

বিষয়টি জানতে পটিয়া থানায় কর্তব্যরত পুলিশ পরিদর্শক কে জিজ্ঞেস করলে থানা সূত্রে জানাই, যেহেতু মামলা চলমান এবং আদালতে একাধিক মামলা সহ প্রতিবেদনের নির্দেশনা আছে তাই আমরা কিছু বলতে পারছি না। তবে তার বিরুদ্ধে চলমান মামলায় ওরান্টে/আটক নির্দেশনা পেলে দ্রুত ব্যবস্থা নিব। গত কয়েকদিন পূর্বেও বসরের বিরুদ্ধে বাদী শাহিনের মৌখিক অভিযোগ জেনেছি। ২য় স্ত্রী শাহিন আরো জানাই, তাকে মামলা তুলে নিতে মিথ্যা ইয়াবা-মাদক ও পতিতা(মানব)পাচার মামলার ভয় দেখিয়ে মানষিকভাবে নির্যাতনের কথা ওজানাই।

এই রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত একাধিকবার বসরের পৈত্রিক ঠিকানায়/একান্ত ভাবে যোগাযোগ(মুঠোফোনে)পাওয়া না যাওয়াতে তার বক্তব্য নেওয়া যাইনি।

তাই উচ্চ প্রশাসনের অনুরোধ, এই জঘন্যতম বক ধার্মিক প্রতারকের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচারের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগি নির্যাতিত পরিবারের সদস্যরা ।

Published by Rakib Hasan

এটি একটি অনলাইন ভিত্তিক বাংলাদেশের নিউজ র্পোটাল।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

Create your website at WordPress.com
Get started
%d bloggers like this: